Md. Abdullah Saeed Khan

World Asthma Day 02/05/2023

আজকে বিশ্ব হাঁপানি দিবস। এই দিবস উপলক্ষে যাদের হাঁপানি আছে তাদের জন্য কিছু স্বাস্থ্য উপদেশ। কিছু কিছু উপদেশ আমাদের সবার ফুসফুসের স্বাস্থ্যের জন্যই মেনে চলা দরকার।

  • আপনার হাঁপানির মাত্রা বেড়ে যায় এমন প্রভাবকগুলো পরিহার করুন। যেমন: অ্যালার্জেন, বায়ুদূষণ, ধূমপান এবং ঠান্ডা বাতাস।
  • স্বাস্থ্যকর ও ভারসাম্যপূর্ণ খাবার গ্রহণ করুন। আপনার সুস্বাস্থ্য ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য খাবারের মধ্যে ফল, সবজি, আস্ত শস্য দানা এবং তেলমুক্ত প্রোটিন রাখার চেষ্টা করুন।  
  • ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন এবং নিয়মিত শরীরচর্চা করুন। কারণ, অতিরিক্ত ওজন এবং একটি শারীরিক পরিশ্রমের অভাব আপনার রোগের লক্ষণ বৃদ্ধি করতে পারে।
  • শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণ এড়ানোর জন্য পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখুন। যেমন- নিয়মিত হাত ধৌত করুন, সংক্রামক রোগের আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে যোগাযোগের ক্ষেত্রে মাস্ক পরিধান করুন। হাঁচি বা কাশি দেয়ার  সময় নাক এবং মুখ রুমাল বা টিস্যু বা কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখুন।
  • আপনার ফুসফুসের কার্যক্ষমতা নিয়মিত পরীক্ষা করুন।
  • আপনার বাড়ি এবং কাজের জায়গা পরিষ্কার রাখুন।
  • আপনার ডাক্তার আপনাকে যে হাঁপানির ওষুধ দিয়েছে তা গ্রহন করতে থাকুন। এমনকি যদি আপনি ভালও অনুভব করেন, ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া তা গ্রহন বন্ধ করবেন না।
  • সুযোগ থাকলে ঘরের বা অফিসের বাতাসের সর্বোত্তম আর্দ্রতা মাত্রা বজায় রাখার জন্য একটি হিউমিডিফাইয়ার ব্যবহার করুন। কারণ, অতিরিক্ত বা খুব কম আর্দ্রতা আপনার শ্বাসকষ্টের সমস্যাগুলোকে উদ্দিপিত করতে পারে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top